বৃহস্পতিবার , ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
সব জেলায় রেলপথ চালু করা হবে , রেলওয়েকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিনত ও বন্ধ রেল চালু করতে চাই--- রেলমন্ত্রী, জিল্লুল হাকিম

রেলওয়েকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিনত ও বন্ধ রেল চালু করতে চাই— রেলমন্ত্রী, জিল্লুল হাকিম

॥ আবুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি ॥

রেলওয়েকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিনত ও বন্ধ সকল লাইনকে পুনরায় চালু করতে চাই। আমাদের অনেক রেলপথ ছিল যেগুলো বন্ধ করে দিয়েছিল তৎকালীন বিএনপি সরকার।

 

রাজবাড়ীতে বহুবছর ধরে বন্ধ হয়ে থাকা লোকোসেডটি আরো বড় পরিসরে চালু করা হবে। এখানে ট্রেনের স্পেশাল কোচের মেরামত হবে। লোকেসেডের বেহাত হওয়া জমি উদ্ধার করা হবে। রেলের কোন জমি বা সম্পদ কেউ অবৈধভাবে দখল করে রাখতে পারবে না।’

আপনারা দেখেছেন রাজবাড়ীতে কালুখালী-ভাটিয়াপাড়া রেলপথ বন্ধ করে দিয়েছিল তারা। জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে বন্ধ হয়ে যাওয়া সকল রেলপথ পুনরায় চালু করছেন। রেলপথ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বিশাল পরিকল্পনা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় দেশের প্রতিটি জেলায় রেলপথ চালু করা হবে।’

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. জিল্লুল হাকিম বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে এক গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

পূর্ণমন্ত্রী হওয়ার পর আজই তিনি প্রথম নিজ জেলায় প্রবেশ করলেন। এর আগে সকাল ৯ টায় ন্যাম ভবনস্থ সরকারি বাসভবন থেকে সড়ক পথে বের হয়ে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাটে এসে বিআইডব্লিউটিসির নির্ধারিত একটি ফেরিতে দৌলতদিয়া ঘাটে আসেন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে রেলমন্ত্রী আরো বলেন, ‘ঐতিহ্যগত ভাবেই রাজবাড়ী জেলাকে রেলের শহর বলা হয়। রেলের শহরের মানুষকে রেলমন্ত্রী বানিয়ে প্রধানমন্ত্রী আমাকে যেমন সম্মানীত করেছেন ঠিক তেমনি রাজবাড়ী জেলাবাসীকেও সম্মানীত করেছেন। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আমি বিশেষভাবে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।’

তিনি বলেন, ঐতিহ্যবাহী গোয়ালন্দ ঘাট পর্যন্ত চলাচলকারী সকল বন্ধ ট্রেন আবার চালু করা হবে। রাজবাড়ীতে বহুবছর ধরে বন্ধ হয়ে থাকা লোকোসেডটি আরো বড় পরিসরে চালু করা হবে। এখানে ট্রেনের স্পেশাল কোচের মেরামত হবে। লোকেসেডের বেহাত হওয়া জমি উদ্ধার করা হবে। রেলের কোন জমি বা সম্পদ কেউ অবৈধভাবে দখল করে রাখতে পারবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘সারা দেশে রেলপথ চালু করলে দেশের উন্নয়ন হবে। অর্থনৈতিক সক্ষমতা বাড়বে। রেলপথ চালু হলে ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসার ঘটবে। কৃষি পণ্যসহ বিভিন্ন মালামাল খুব সহজেই এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় পরিবহন করা যাবে। এ জন্য সব জেলায় রেলপথ চালু করা হবে

আপনাদের সবার সহযোগিতা ও দোয়া সাথে থাকলে প্রধানমন্ত্রী যে উদ্দেশ্যে আমাকে রেলমন্ত্রী বানিয়েছেন আমি সেই উদ্দেশ্য সফল করতে পারব ইনশাআল্লাহ।’

গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ মোস্তফা মুন্সির সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরো উপস্হিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী,জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শফিকুল মোর্শেদ আরুজ, সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য সালমা চৌধুরী রুমা, গোয়ালন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব ঘোষ, গোয়ালন্দ পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম মন্ডল, দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান মন্ডল প্রমূখ।

Check Also

সিরাজগঞ্জের সলংগায় মাদ্রাসা পড়ুয়া ১০ বছরের ছাত্রী নিখোঁজ।

॥ এম আরিফুল ইসলাম, সলংগা (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি ॥ সিরাজগঞ্জের সলংগা থানাধীন রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের অলিদহ গ্রামের সানজিদা …