শুক্রবার , ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

গোয়ালন্দে মাটি বালু ও অবৈধ ব্যবসার সাথে পুলিশ প্রশাসনের কোন আপোষ নেই, আইনশৃঙ্খলা সভায় ওসির হুশিয়ারী

॥ আবুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি ॥

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে কোন মাটি, বালুর ব্যবসা চলবেনা। আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় ব্যাপক আলোচনা। গোয়ালন্দে মাটি বালু ও অবৈধ ব্যবসার সাথে পুলিশ প্রশাসনের কোন আপোষ নেই, আইনশৃঙ্খলা সভায় ওসির হুশিয়ারী

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে কোন মাটি, বালুর ব্যবসা চলবেনা। কোন অবৈধ ব্যবসার সাথে পুলিশ প্রশাসনের কোন আপোষ নেই। এছাড়াও আমরা মাদক নির্মূল করতে প্রতিদিন অভিযান চালাচ্ছি।

সোমবার (২২ জানুয়ারী) সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদের সভাকক্ষে গোয়ালন্দ উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় মাটি খেকো ও মাদককারবারীদের উদ্দেশ্যে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি প্রাণবন্ধু চন্দ্র বিশ্বাস এ কঠোর হুশিয়ারি দেন।

এসময় তিনি আরও বলেন, কয়েকদিন আগে দৌলতদিয়া পদ্মার চর থেকে ভেকু দিয়ে অবৈধভাবে মাটি,বালু উত্তোলনের জন্য ১১টি ড্রাম ট্রাক জব্দ করা হয়। থানায় ট্রাক আটকের দুইদিন পর মালিকদের সতর্ক করে দেয়া হয় তারা যেন কোন প্রকার মাটি, বালু উত্তোলন করে বিক্রি না করে। এ ব্যাপারে তারা কথা দিয়েছে, মাটি, বালু আর বিক্রি করবেনা।

সভায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আব্দুস সামাদ মোল্লা তার বক্তব্যে বলেন, গোয়ালন্দ উপজেলায় অনেক স্থানে আনাচেকানাচে মাদক বিক্রি হয়। এ ব্যাপারে প্রশাসন অবশ্যই জানে কিন্তু এ্যাকশন নেননা।

মাদকের বিষয়ে তিনি বলেন, গত ১১ থেকে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত গোয়ালন্দ ঘাট থানায় মোট ২৭টি মামলা হয়েছে এর মধ্যে ২১টি রয়েছে মাদক মামলা। আমি প্রতিদিন দৌলতদিয়া ঘাটের পোড়াভিটা সহ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে মাদক কারবারীদের গ্রেফতার করছি। আমরা চেস্টা করছি উপজেলা থেকে মাদক নিয়ন্ত্রণ করতে। এজন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইউএনও জ্যোতি বিকাশ চন্দ্রের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন- গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মোস্তফা মুন্সী, গোয়ালন্দ পৌরসভার মেয়র মো. নজরুল ইসলাম মন্ডল, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ ফারসিম তারান্নুম হক, উজানচর ইউপি চেয়ারম্যান মো. গোলজার হোসেন মৃধা, দৌলতদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আঃ রহমান মন্ডল, ছোট ভাকলা ইউপি চেয়ারম্যান মো. আমজাদ হোসেন, গোয়ালন্দ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মো. আবুল হোসেনসহ উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আব্দুস সামাদ মোল্লা তার বক্তব্যে বলেন, গোয়ালন্দ উপজেলায় অনেক স্থানে আনাচেকানাচে মাদক বিক্রি হয়। এ ব্যাপারে প্রশাসন অবশ্যই জানে কিন্তু এ্যাকশন নেননা। প্রশাসন ইচ্ছা করলে ৭দিনের মধ্যেই এ সব মাদক ব্যবসায়ীদের ধরতে পারে এবং সমস্ত মাদক ব্যবসা বন্ধ করতে পারে। আমরা চাই উপজেলাটি মাদকমুক্ত হোক, প্রশাসন এ ব্যাপারে কঠোর ভূমিকা পালন করুক।

এছাড়াও সভায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না ঘটে সেজন্য ব্যবস্থা নেয়া, দৌলতদিয়ায় বিভিন্ন ফার্মেসীতে ও মুদি দোকানে যৌন উত্তেজক ওষুধ বিক্রি বন্ধে মোবাইল কোর্ট, যৌনপল্লীর সামনে সড়কে অবাধে যৌনকর্মীদের ঘোরাফেরা বন্ধে নির্দেশনা, বাজার মনিটরিং, অবাধে অতিরিক্ত গতিতে নম্বর বিহীন মোটরসাইকেল বন্ধে ব্যবস্থা,

খোল ট্রাকে বালু পরিবহন বন্ধে মোবাইল কোর্ট, গোয়ালন্দে দেশীয় মদের দোকান অপসারণ, পোড়াভিটায় মাদকের ওপর নিয়মিত অভিযান চালিয়ে মাদককারবারী ও সেবীদের গ্রেফতার, উপজেলার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাইবার বুলিং কারীদের নজরদারি, চুরি, বাল্যবিবাহ বন্ধে সচেতনতা বাড়াতে অভিভাবকদের সমন্বয়ে স্কুলে প্রচার প্রচারণা চালানো,

মাদকদ্রব্য বেচাকেনা এবং সেবন বন্ধে সচেতনতা বাড়াতে প্রচার প্রচারণা করা, মাইকিং বন্ধে কঠোর হস্তক্ষেপ, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা বাড়ানোসহ উপজেলার আইন-শৃঙ্খলা সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা এবং সেগুলো বাস্তবায়ন করা নিয়ে আলোকপাত করা হয়।

Check Also

সিরাজগঞ্জের সলংগায় মাদ্রাসা পড়ুয়া ১০ বছরের ছাত্রী নিখোঁজ।

॥ এম আরিফুল ইসলাম, সলংগা (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি ॥ সিরাজগঞ্জের সলংগা থানাধীন রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের অলিদহ গ্রামের সানজিদা …