বৃহস্পতিবার , ৩০ মে ২০২৪

উল্লাপাড়ায় জাতীয় শোক দিবসে উপস্থিত ছিলেন না সাব-রেজিস্টার জানাননি বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা

॥ এ আর রাজু, উল্লাপাড়া (সিরাজঞ্জ) প্রতিনিধি ॥

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় সাড়া দেশের ন্যায় যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে জাতীয় শোক দিবস ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত হলেও উপস্থিত ছিলেন না উল্লাপাড়ার সাব-রেজিস্টার।

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতেও জানাননি শ্রদ্ধা। তার বিরুদ্ধে রয়েছে নানাবিধ দুর্নীতি ও অনিয়ম। সরকারের বিভিন্ন নিয়ম- কানুনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে দপ্তর পরিচালনা করার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

 

সভাপতি মোঃ আশরাফুল ইসলাম শাহাদত জানান, বঙ্গবন্ধুর একজন সৈনিক হিসেবে এ কথা শোনাও আমার জন্য পাপ। ১৫ আগষ্টের কোন কর্মসূচিতেই সাবরেজিস্টার অনিমেষ পাল যোগ দেননি

দপ্তর সংশ্লিষ্ট নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েক ব্যক্তি অভিযোগ করে জানান, স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদাত বার্ষিকীতে সাবরেজিস্টার অনিমেষ আসেননি তার কর্মস্থলে। এমন কি তার অফিসের পক্ষ থেকেও জানানো হয়নি বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি।

তারা আরো জানান, সরকার ঘোষিত জাতীয় দিবসগুলো তেমনভাবে পালন করা হয় না এই অফিসে। সারাক্ষণ অনিয়ম ও দুর্নীতিতে ভরপুর থাকে উল্লাপাড়ার সাব-রেজিষ্টি অফিস। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

উল্লাপাড়া দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম জানান, ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সাব রেজিস্ট্রার অনিমেষ কুমার পাল সমিতি কে কোন কর্মসূচির কথা জানাননি এবং তেমন কোন কর্মসূচি পালনও করা হয়নি।

সভাপতি মোঃ আশরাফুল ইসলাম শাহাদত জানান, বঙ্গবন্ধুর একজন সৈনিক হিসেবে এ কথা শোনাও আমার জন্য পাপ। ১৫ আগষ্টের কোন কর্মসূচিতেই সাবরেজিস্টার অনিমেষ পাল যোগ দেননি এবং তার অফিসের পক্ষ থেকেও শ্রদ্ধাঞ্জলি দেননি বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে। এ কথা জেনে দলিল লেখক সমিতির সকল সদস্য ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

উল্লাপাড়া সাবরেজিস্টি অফিসের প্রধান অফিস সহায়ক সুজাবত আলী জানান, স্যারের ব্যক্তিগত জরুরি কাজ থাকায় ১৫ আগষ্টের জাতীয় শোক দিবসের কোন কর্মসূচিতে যোগ দিতে পারেননি। গণমাধ্যম কর্মীরা তার অফিসে গেলে সাক্ষাতও দেননি। তবে ঘরোয়াভাবে দোয়ার অনুষ্ঠান করা হয়েছে। পক্ষান্তরে অভিযোগকারীরা জানান দোয়া ও মিলাদ মাহফিল আয়োজন করার কোন সত্যতা নেই।

এ ব্যাপারে সাবরেজিস্টার অনিমেষ কুমার পালের মুঠোফোনে ফোন দিলে তিনি ফোন ধরেননি।

উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ উজ্জল হোসেন জানান, ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসের সকল কর্মসূচি সরকারি বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত সকল অফিস আদালতে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করতে হবে। কেউ পালন না করলে তাকে ব্যক্তিগতভাবে দায় নিতে হবে।

সিরাজগঞ্জ জেলা সাব রেজিস্ট্রার অফিসার মো: জাহাঙ্গীর আলম জানান, ১৫ আগষ্টের সরকারি নির্দেশ পালন না করলে তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Check Also

গোয়ালন্দে ধান-চাল -গম ক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন

॥ আবুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে সরকারীভাবে বোরো ধান,চাল ও গম ক্রয় …