বৃহস্পতিবার , ৩০ মে ২০২৪

মোংলায় গলায় দড়ি দিয়ে গাছে ঝুলে ঘের মালিকের আত্মহত্যা

॥ বাগেরহাট প্রতিনিধি ॥

মোংলার দত্তেরমেঠ এলাকায় নিজ বাড়ীর গাছের সাথে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন স্থানীয় এক ঘের মালিক। ভোরে গাছে লাশ ঝুলতে দেখে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন তারা পরিবার। লাশের সুরতহাল করে ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

 

শুক্রবার ভোর ৬টার দিকে পরিবারের লোকজন গাছে লাশ ঝুলতে দেখে ডাকচিৎকার শুরু করেন। এতে লোকজন জড়ো হলে পরে লাশটি নামিয়ে ৬টা ৫০মিনিটের সময়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন তারা।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, উপজেলার মিঠাখালী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব দত্তেরমেঠ গ্রামের বাসিন্দা সুধীর মুখার্জির ছোট ছেলে গোপাল মুখার্জি (৪০) বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আড়াইটায়র দিকে টাটিবুনিয়ার স্কুলের সামনের এখলাছের দোকানে চা ও সিগারেট খান।

এরপর বাড়ীতে ফিরে রাতের যে কোন এক সময়ে ঘরের পশ্চিম পাশের মেহেগুনী গাছে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। শুক্রবার ভোর ৬টার দিকে পরিবারের লোকজন গাছে লাশ ঝুলতে দেখে ডাকচিৎকার শুরু করেন। এতে লোকজন জড়ো হলে পরে লাশটি নামিয়ে ৬টা ৫০মিনিটের সময়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন তারা।

এরপর হাসপাতাল থেকে পুলিশে ফোন করা হলে খবর পেয়ে সকাল ১০টার দিকে থানার এসআই বাহারুল ইসলাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান। সেখানে গিয়ে লাশের সুরতহাল সম্পন্ন করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান এসআই বাহারুল। তবে কেন, কি কারণে এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে তা প্রাথমিকভাবে কিছুই জানাতে পারেনি পুলিশ।

গোপাল মুখার্জি পরিবারের ৪ ভাই বোনের মধ্যে সবার ছোট ও অবিবাহিত ছিলেন। পেশায় ছিলেন চিংড়ি ঘের মালিক। স্বভাবে বিনয়ী, ভদ্র ও শান্ত-সৃষ্ট এবং মিশুক প্রকৃতির গোপালের এ হত্যার কোন কারণই খুঁজে পাচ্ছেন না পরিবার ও তার এলাকার লোকজন।

Check Also

গোয়ালন্দে ধান-চাল -গম ক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন

॥ আবুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে সরকারীভাবে বোরো ধান,চাল ও গম ক্রয় …