বৃহস্পতিবার , ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

কারণটা তুই

কল্পনা দাস

আছো কেমন?
গোলাপ ফুলের মতন
সর্বাঙ্গে কাঁটা নিয়ে মুখে সদাই হাসি এখন।
রাতে ঘুম?
সে তো ভেঙে যায় যখন- তখন
ভূমিকম্প হলে পৃথিবী যেমন কেঁপে ওঠে
ঘুম ভাঙলেই তেমন করেই
আমার শরীরেও কাঁপন ধরে
আর খুব কান্না পায়।

মোবাইল ফোন?
ব্যবহার কমে গেছে ,অসহ্য লাগে।
অনলাইনেও যাওয়া হয়না তেমন।
আগে যেমন শত ব্যস্ততাতেও কাজের ফাঁকে মেসেনজারে চোখ বুলিয়ে নিতাম,
এখন আর নেই তেমন আকর্ষণ।
চোখে কাজল?
পরিনা তেমন
পরলেও থাকেনা বেশিক্ষণ
চোখের নোনা জলে ভিজে উঠে যায়।
কপালে টিপ?
জানিস, এখন আর সাজতে ভালো লাগেনা।
তাই টিপ পরাও হয় না।
হলুদ শাড়ি?
মনের ফাগুন, তোর জ্বালানো আগুনে
পুড়ে হয়েছে ছাই
হলুদ শাড়ি পরা হয় না তাই।
জ্যোৎস্নায় স্নান?
করিনি অনেকদিন।
পূর্ণিমার আলো জানালায় এসে হাতছানি দিয়ে আমায় ডাকে
তবুও ছাদে গিয়ে জ্যোৎস্নায় গা ভেজাতে ইচ্ছে করেনা।
নিজেকে এখন যান্ত্রিক মনে হয়।
খেতে হবে বলে খাই,
চলতে হবে বলে চলি।
জানিস, জীবনের প্রতি মায়াটা কমে গেছে অনেকখানি।
আমার এমন বদল কেন হয়েছে, বলতো?
এসব কিছু বদলের কারণটা তুই।

 

Check Also

“জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইন্টারন্যাশনাল পীস এ্যাওয়ার্ড-২০২৩” পেলেন বাংলাদেশের কবি আলী মুহাম্মাদ

॥ নিজস্ব প্রতিনিধি ॥ আজকে ০৯-০৬-২০২৩ ইং, রোজ শুক্রবার, বিশ্ব ভারতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রথীন্দ্র মঞ্চে এক …