শনিবার , ১৫ জুন ২০২৪

মোংলা বন্দর জেটির ৪নং ইয়ার্ডে কাজের সময় আঘাত প্রাপ্ত হয়ে শ্রমিকের মৃত্যু

॥ বাগেরহাট প্রতিনিধি ॥

মোংলা সমুদ্র বন্দর জেটিতে ৪ নম্বর ইয়ার্ডে কাজ করার সময় কন্টেইনার পরিবহণকারী ফরক্লিপের আঘাতে এক সিএন্ডএফ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। নিহত শ্রমিকের বাড়ী পৌর শহরের কবরস্থান রোড এলাকায়।

 

 

সন্ধ্যায় বন্দর জেটিতে কাজ করার সময় অসতর্কতাবশত ফরক্লিপের আঘাতে আহত সিএন্ডএফ শ্রমিক জামালকে বন্দর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।

সিএন্ডএফ শ্রমিক সরদার আবুল কালাম শিকদার (মুলাদী কালাম) ও বন্দরে গেট প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম জানান, সি এন্ড এফ শ্রমিক সরদার কালাম সিকদারের সাথে সোমবার সন্ধ্যায় মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের ৪নম্বর কন্টেইনার ইয়ার্ডে কাজ করছিলেন সিএন্ডএফ শ্রমিক মোঃ জামাল হাওলাদার (৪৫)।

রাতের দিকে জেটিতে থাকা কন্টেইনার ট্রাকে উত্তোলনের সময় কন্টেইনার পরিবহণকারী ফরক্লিপের ষ্টিল কয়েলের আঘাত লেগে জামালের মাথায় ও মুখে মারাত্মক জখম হয়। সাথে সাথে বন্দরের নিরাপত্তাকর্মীরা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে ঘটনাস্থল থেকে প্রথমে বন্দর কর্তৃপক্ষের হাসপাতালে নিয়ে যায়।

সেখানে তার অবস্থা অবনতি হলে সেখান থেকে রাত ৮টার দিকে খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। রাত সাড়ে ৮টার দিকে খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত সিএন্ডএফ শ্রমিক জামাল হাওলাদার পৌরসভার ৬নম্বর ওয়ার্ডের কবরস্থান এলাকার বাসিন্দা মৃত আব্দুল হামিদ হাওলাদারের ছেলে। নিহত শ্রমিক জামালের এক স্ত্রী, দুই মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সিনিয়র নিরাপত্তা কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সন্ধ্যায় বন্দর জেটিতে কাজ করার সময় অসতর্কতাবশত ফরক্লিপের আঘাতে আহত সিএন্ডএফ শ্রমিক জামালকে বন্দর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।

সেখান থেকে তার মরদেহ ময়না তদন্ত শেষে কবরস্থান রোডস্থ শ্রমিক ভবন এলাকায় তার বাসা নিয়ে আসার প্রক্রিয়া চলছে। পরে তাকে পৌর কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে জানায় পরিবারের সদস্যরা।

মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহম্মাদ সামসুদ্দীন বলেন, রাতে বন্দর জেটিতে অনেক শ্রমিক কাজ করছিল। হঠাৎ জেটিত কন্টেইনার বহনকারী একটি ফরক্লিপ নামক গাড়ীর সাথে আঘাত পেয়ে তার মৃত হয়েছে। খুলনা থেকেই ময়না তদন্ত ও থানা পুলিশেন অফিসিয়াল কার্যক্রম শেষে মোংলায় তাকে দাফন করা হবে।

Check Also

বাংলাদেশে ওয়াই-ফাই ৭ নিয়ে এলো হুয়াওয়ে

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাংলাদেশের বাজারে বিভিন্ন ধরনের ওয়াই-ফাই ৭ অ্যাকসেস পয়েন্ট পণ্য নিয়ে এসেছে …