শুক্রবার , ১২ এপ্রিল ২০২৪
ইনসেটে জো বাইডেন এর কথিত উপদেষ্ঠা

গ্রেফতার মায়া আরেফি জো বাইডেনের কথিত উপদেষ্টার গ্রামের বাড়ির কথা

॥ এ আর রাজু, উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি ॥

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ভুয়া উপদেষ্টা পরিচয় দানকারী মিয়া আরেফি’কে রোববার বিকেলে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ। শনিবার রাতে ঢাকার কেন্দ্রীয় বিএনপি কার্যালয়ে জো বাইডেনের উপদেষ্টা পরিচয় দিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিং দেন মিয়া জাহিদুল ইসলাম আরেফিন ওরফে বেলাল।

 

তার গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার সলঙ্গা ইউনিয়নের মানিকদিয়ার। গ্রামের মানুষ তাকে বেলাল বলেই চেনেন। তিনি এই গ্রামের রওশন আলী মন্ডলের ছেলে।

তার বাবা কর্মজীবনে পাবনা জেলা শিক্ষা অফিসের জেলা শিক্ষা অফিসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সেই সুবাদে মিয়া আরেফি ওরফে বেলাল পাবনায় বেড়ে ওঠেন এবং লেখাপড়া করেন বলে জানা গেছে। বর্তমানে তারা সপরিবারে আমেরিকায় থাকেন।

গত শনিবার রাতে ঢাকায় বিএনপি কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং এর পর তিনি রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক আলোচনায় আসেন। প্রশাসন ও সংবাদ কর্মীরা তৎপর হয়ে ওঠেন তার সম্পর্কে।

এ সময় তিনি উল্লাপাড়া ডাকবাংলোতে কয়েকদিনের জন্য অবস্থান করেন। চাচাতো ভাই ছাইদুর জানান উল্লাপাড়ার সাবেক সংসদ সদস্য (বিএনপি) এম আকবর আলীর সঙ্গে তাদের পরিবারের পারিবারিক সম্পর্ক আছে। বেলালের বাবা রওশন আলীর সঙ্গে আকবর আলীর একটা ভালো সম্পর্ক ছিল।

এব্যাপারে মিয়া আরেফি’র গ্রামের বাড়ি গিয়ে কথা হয় তার চাচাতো ভাই ছাইদুর রহমান ও আছের আলীর সঙ্গে। তারা জানান, স্বাধীনতার কিছু দিন পর মিয়া আরেফি’র বাবা রওশন আলী পরিবার- পরিজন নিয়ে আমেরিকাতে চলে যান। যাবার কয়েক বছর পর তাদের গ্রামের বাড়িটি নিকট আত্মীয়দের কাছে বিক্রি করে দেন।

তবে তাদের নিজস্ব জায়গার উপর একটি পারিবারিক কবরস্থান ও একটি মক্তব আছে। পারিবারিক কবরস্থানে মিয়া আরেফি’র দাদা দাদির কবর রয়েছে। মিয়া পরিবারের ঢাকায় একটি নিজস্ব বাড়ীও আছে। মাঝে মাঝে তারা ঢাকায় এসে থাকেন এবং এ সময় তারা গ্রামের বাড়ীতেও বেড়াতে আসেন।

ছাইদুর ও আছের আরও বলেন, মিয়া আরেফি ওরফে বেলাল সর্বশেষ গত জুলাই মাসে গ্রামে এসে তার চাচা আব্দুর রশিদের ছেলে জাহাঙ্গীর, জামিরুল ও জিয়াদের বাড়ীতে ছিলেন এবং তার দাদা দাদির কবর জিয়ারত ও রুহের মাগফেরাত কামনা করে একটি মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেন।

এ সময় তিনি উল্লাপাড়া ডাকবাংলোতে কয়েকদিনের জন্য অবস্থান করেন। চাচাতো ভাই ছাইদুর জানান উল্লাপাড়ার সাবেক সংসদ সদস্য (বিএনপি) এম আকবর আলীর সঙ্গে তাদের পরিবারের পারিবারিক সম্পর্ক আছে। বেলালের বাবা রওশন আলীর সঙ্গে আকবর আলীর একটা ভালো সম্পর্ক ছিল।

তবে মানিকদিয়ার গ্রামের মিয়া আরেফিনের স্বজনেরা মিয়া আরেফি ওরফে বেলাল মার্কিন প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা কি না বা আমেরিকার কোন রাজনৈতিক সংগঠনের সঙ্গে জড়িত কি-না তা বলতে পারেননি তারা।

এব্যাপারে সাবেক এমপি এম আকবর আলী মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, আরেফিনের বাবা রওশন আলী সঙ্গে তার জানা-শোনা ছিল। সেই সুবাদে তাদেরকে তিনি চেনেন।

সলঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ এনামুল হক জানান, গত জুলাই মাসে মিয়া আরেফি নামের ঐ ব্যক্তি উল্লাপাড়ায় তার গ্রামের বাড়িতে এসেছিলেন। তার দাদা-দাদির মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে অনেককে দাওয়াত করেছিলেন। এ সময় তিনি উল্লাপাড়ার ডাকবাংলোতে কয়েকদিন ছিলেন।

উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ নজরুল ইসলাম জানান, মিয়া আরেফি নামের ঐ ব্যক্তি গত জুলাই মাসে উল্লাপাড়ায় এসেছিলেন। তার খালাতো বোন জামাই সাংবাদিক আব্দুল বাতেন হিরু কে সঙ্গে নিয়ে থানায় আসেন। পরে সাংবাদিক সাহেব মিয়া আরেফি’র সাথে পরিচয় করিয়ে দেন এবং আমাকে তার বাড়ীতে চা চক্রের আমন্ত্রণ জানান।

Check Also

ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে জাতীয় যুব জোট রাজশাহী মহানগর শুভেচ্ছা বার্তা

॥ রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি ॥ জাতীয় যুব জোট রাজশাহী মহানগর সভাপতি শরিফুল ইসলাম সুজন ও …