শনিবার , ১৩ এপ্রিল ২০২৪

রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের কয়লা নিয়ে মোংলা বন্দরে নঙ্গর করছে “এমভি সাগরজিট”

॥ ইউসুফ সুমন, বাগেরহাট প্রতিনিধি ॥

রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য কয়লা নিয়ে মোংলা বন্দরে নঙ্গর করেছে “এমভি সাগরজিট” নামের বিদেশী বানিজ্যিক জাহাজ।
ইন্দোনেশিয়া থেকে আসা এবারের চালানে ৩৩ হাজার ১১০ মেট্রিক টন জালানী কয়লা বোঝাই করে বন্দরের হারবাড়িয়ার ১২ নম্বর এ্যাঙ্কারেজ বয়ায় নঙ্গর করেছে এ জাহাজটি।

 

খালাস করা কয়লা কার্গো ও লাইটার জাহাজ যোগে নেয়া হবে রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জেটিতে। রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র কয়লার সংকটে বন্ধের পরে কয়লা নিয়ে আসা এটি ১২তম চালানের জাহাজ। জাহাজ থেকে কয়লা খালাস করতে সময় লাগবে ৭/৮ দিন বলেও জানায় শিপিং কর্তৃপক্ষ।

আমদানীকরক বলছে, কয়লা খালাস করতে সময় লাগবে মাত্র ৭/৮ দিন। জাহাজটির স্থানীয় মেসার্স টগি শিপিং এজেন্ট কর্তৃপ জানায়, শনিবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে মোংলা বন্দরের হারবাড়িয়ার ১২ নম্বর এ্যাংকারেজ বয়ায় ভিড়েছে গিঙ্গাপুর পতাকাবাহী “এমভি সাগরজিট” নামের বানাজ্যিক এ জাহাজটি।

শুক্রবার (২০ অক্টোবর) রাতের জোয়ারে এসে বঙ্গোপসাগর মোহনার হিরোনপয়েন্টে ফেয়ারওয়ে বয়ায় অবস্থান নিয়ে শনিবার ভোরে সরাসরী হারবাড়িয়ার ১২ নম্বর এ্যাঙ্কারেজ বয়ায় এসে নঙ্গর করে। জাহাজটি গত ৩০ সেপ্টেম্বর ইন্দোনেশিয়ার “মুয়ারা বিরু” নামক বন্দর থেকে ৫৬ হাজার ৫১০শ মেট্রিক টন কয়লা বোঝাই করে।

সেখান থেকে কয়েকটি সাগর পথ পাড়ি দিয়ে ১৭ অক্টোবর রাতে চট্রগ্রাম বন্দরে এসে ২৩ হাজার ৪শ মেঃ টন কয়লা খালাস করে। বাকি কয়লা নিয়ে ২২ অক্টোবর রাতে মোংলা বন্দরের উদ্দোশ্যে ছেড়ে আসে “এমভি সাগরজিট”।

জাহাজটি ইন্দোনেশিয়া থেকে মোংলা বন্দর পর্যন্ত পৌছাতে ২১ দিন সময় লেগেছে। শনিবার সকালে হারবাড়িয়া ১২ নম্বর বয়ায় নঙ্গরের পর এদিন দুপুরের পালা থেকে কয়লা খালাস কাজ শুরু করে কয়লা খালাসকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স এম এ হাসেম এন্ড সন্স কোম্পানীর প্রতিনিধিরা।

খালাস করা কয়লা কার্গো ও লাইটার জাহাজ যোগে নেয়া হবে রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জেটিতে। রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র কয়লার সংকটে বন্ধের পরে কয়লা নিয়ে আসা এটি ১২তম চালানের জাহাজ। জাহাজ থেকে কয়লা খালাস করতে সময় লাগবে ৭/৮ দিন বলেও জানায় শিপিং কর্তৃপক্ষ।

জাহাজটির স্থানীয় মেসার্স টগি শিপিং অ্যান্ড লজিস্টিক লিঃ এর সহকারী অপারেশন কর্মকর্তা মোঃ হোসেন ইমান, রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য আনা কয়লা এর বেশীর ভাগই আমাদের টগি শিপিং কর্তৃপক্ষ আমদানী করে থাকে। এজাহাজের পর আগামীতে আরো বেশ কয়েকটি কয়লাবাহী জাহাজ আসান সিডিউল রয়েছে।

তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে যেন কয়লা সংকটেন কারণে বন্ধ না হতে পারে সে জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে একের পর এক কয়লার জাহাজ আনান জন্য। এছাড়াও আগামী আরো বেশী কয়লা মজুদ রাখারও চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও জানায় এ শিপিং কর্মকর্তা।

এর আগে গত ৩ অক্টোবর ১১তম চালানে ৩৪ হাজার ২শ মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে “এমভি লুনা রোজা ” নামের বিদেশী জাহাজটি কয়লা খালাস করে মোংলা বন্দর ত্যাগ করছিল।

Check Also

ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে জাতীয় যুব জোট রাজশাহী মহানগর শুভেচ্ছা বার্তা

॥ রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি ॥ জাতীয় যুব জোট রাজশাহী মহানগর সভাপতি শরিফুল ইসলাম সুজন ও …