বৃহস্পতিবার , ৩০ মে ২০২৪

দৌলতদিয়া যৌনপল্লী সংলগ্ন পোড়াভিটা থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

॥ আবুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি ॥

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দেশের বৃহত্তম দৌলতদিয়া যৌনপল্লী সংলগ্ন পোড়াভিটা এলাকার একটি বাড়ি থেকে মিন্নত মোল্লা (৩০) নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্থানীয় করিম মোল্লার বাড়ির ভাড়াটিয়া নুরজাহান বেগমের ঘর থেকে ৬ আগষ্ট রবিবার লাশটি উদ্ধার করা হয়। সে মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় উপজেলার শাইলী গ্রামের ইউনুস আলীর ছেলে। পেশায় সে একজন সিএনজি চালক।

 

অসুস্থ্য অবস্থায় দেখতে পেয়ে দ্রুত মাথায় তেল-পানি দিয়ে প্রাথমিক সেবা দিতে থাকেন। এক পর্যায়ে বেশি অসুস্থ্য হয়ে নেতিয়ে পড়লে দ্রুত স্থানীয় এক ওষুধ ব্যবসায়ীকে খবর দেয়া হয়। প্রাথমিক পরিক্ষা শেষে মিন্নত মারা গেছেন বলে নিশ্চিত করেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মিন্নত মোল্লা আজ রোববার সকাল ৬টার দিকে নুরজাহানের একটি রুমে খুলে বিশ্রাম নিতে থাকে। এ সময় তার অপর দুই সফরসঙ্গী মিন্নতকে খুঁজতে থাকে।

পরে এ বাড়িতে অসুস্থ্য অবস্থায় দেখতে পেয়ে দ্রুত মাথায় তেল-পানি দিয়ে প্রাথমিক সেবা দিতে থাকেন। এক পর্যায়ে বেশি অসুস্থ্য হয়ে নেতিয়ে পড়লে দ্রুত স্থানীয় এক ওষুধ ব্যবসায়ীকে খবর দেয়া হয়। প্রাথমিক পরিক্ষা শেষে মিন্নত মারা গেছেন বলে নিশ্চিত করেন।

স্থানীয়রা জানান, দৌলতদিয়া যৌনপল্লি সংলগ্ন পোড়াভিটা এলাকার অধিকাংশ বাসিন্দাদের বিরুদ্ধে মাদক সেবন ও কারবারে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। শনিবার রাতে মানিকগঞ্জ থেকে মিন্নতসহ তারা ৩জন যৌনপল্লিতে রাত্রিযাপন করেন। স্থানীয়দের ধারণা অতিরিক্ত নেশা বা যৌন উত্তেজক ওষুধ সেবনের ফলে তিনি মারা গেছেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) উত্তম কুমার ঘোষ জানান, প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে ষ্ট্রোক করে মারা গেছেন। শনিবার রাতে মিন্নতসহ তিনজন যৌনপল্লিতে প্রবেশ করেন। তাদের তিনজনের নামে স্থানীয় একটি আবাসিক বোডিংয়ের কক্ষ বুকিং দেয়া রয়েছে। সুরতহাল শেষে ময়না তদন্তের জন্য লাশ রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে পাঠানোর প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার পর মৃত্যুর প্রকৃত কারন জানা যাবে।

Check Also

গোয়ালন্দে ধান-চাল -গম ক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন

॥ আবুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে সরকারীভাবে বোরো ধান,চাল ও গম ক্রয় …