শুক্রবার , ১৯ এপ্রিল ২০২৪

সিরাজগঞ্জের সলংগায় মাদ্রাসা পড়ুয়া ১০ বছরের ছাত্রী নিখোঁজ।

॥ এম আরিফুল ইসলাম, সলংগা (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি ॥

সিরাজগঞ্জের সলংগা থানাধীন রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের অলিদহ গ্রামের সানজিদা (১০) নামের মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রী গত শনিবার ১০/০২/২০২৪ইং তারিখ মাদ্রাসা যাবার পথে নিখোঁজ হয়।

পরদিন ১০ই ফেব্রুয়ারী শনিবার মেয়েকে মাদ্রাসায় পাঠাই। দুপুরে ভাত দিতে গিয়ে মাদ্রাসার হুজুর এর কাছে থেকে শুনি যে মেয়ে মাদ্রাসায় যায় নাই। পরে অনেক খোঁজা-খুজি করি কিন্তু কোথাও পাই নাই।

এসময় তার মা জরিনা খাতুন দৈনিক গ্লোবাল সংবাদ এর প্রতিনিধি কে বলেন, গত বৃহস্পতিবার আমার ২য় স্বামী শরিফুল ইসলাম (শরিফ) সকালে আমার মেয়েকে বড়ই আনার জন্য বাসায় ডাকেন। পরে বিকাল বেলা মেয়ে (সানজিদা) আমায় বলে যে শরিফ মামা আমাকে বাড়ীতে যেতে বলছে। পরে আমি না করার পর মেয়ে আর যায় নাই।

শুক্রবার দিনে মেয়ে বাসায়ই ছিলো। পরদিন ১০ই ফেব্রুয়ারী শনিবার মেয়েকে মাদ্রাসায় পাঠাই। দুপুরে ভাত দিতে গিয়ে মাদ্রাসার হুজুর এর কাছে থেকে শুনি যে মেয়ে মাদ্রাসায় যায় নাই। পরে অনেক খোঁজা-খুজি করি কিন্তু কোথাও পাই নাই। তখন আমি আমার ২য় স্বামী শরিফ কে ফোন করে আসতে বললে সে বলে, ঐ বাসায় আমি জীবনেও যাবো না। আমার সন্দেহ শরিফ-ই আমার মেয়েকে হাইজ্যাক করছে।

এবিষয়ে মেয়ের নানা জহুরুল ইসলামের সাথে কথা বলে জানা যায়, তিনি নাতনিকে অনেক খোঁজা-খুজির পরে না পেয়ে সলংগা মডেল থানায় একটি সাধারণ ডাইরি (জিডি) করি। আমি আমার নাতনি কে ফেরত চাই। এই বিষয়ে মেয়ের নানী ছামেরা খাতুন আরও বলেন, আমরা কি কমু, আমি শুধু আমার নাতীন কে চাই। পুলিশের কাছে এর সঠিক বিচার চাই।

সলংগা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনামুল হক স্যারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এই বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডাইরি (জিডি) করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি তবে তদন্তের জন্য সন্দেহদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। খোঁজা-খোঁজি প্রক্রিয়াধীন আছে।

Check Also

ভিক্ষা ছেড়ে বিকল্প কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে বিশেষ চাহিদা সম্পর্ণ রতনদের পাশে প্রশাসন

॥ আবুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি ॥ একটা সময় মানুষের দুয়ারে দুয়ারে হাত পেতে জীবিকা …