সোমবার , ১৭ জুন ২০২৪

নবাবগঞ্জে সিএনজি চালকদের মানববন্ধন

॥দোহার-নবাবগঞ্জ , ( বিশেষ) প্রতিনিধি ॥

বান্দুরা সিএনজি স্ট্যান্ড সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজ মুক্ত করার দাবীতে ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলা সদরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে সিএনজি চালকরা। বৃহস্পতিবার (৩০মে) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলা ফটকে দাড়িয়ে প্রায় ৫০জন চালক এতে অংশ নেয়। মানববন্ধন শেষে চাঁদাবাজদের গ্রেফতারের দাবীতে প্রধান সড়কে তারা বিক্ষোভ মিছিল করে।

 

সিএনজি চালক মো. মিলন, তোফাজ্জল হোসেন জানান, উপজেলার বান্দুরা সিএনজি স্ট্যান্ডে চাঁদাবাজদের দৌরাত্ম বেড়েই চলছে। প্রতিবাদ করলেই মারধরের শিকার হতে হয়। সাজা হিসেবে সিরিয়াল পিছিয়ে দেয়া হয়।

মানববন্ধনে দাঁড়িয়ে সিএনজি চালকরা জানান, স্থানীয় কালা মামুনের নেতৃত্বে স্থানীয় প্রতি সিএনজি থেকে ৫০ টাকা করে চাঁদা উত্তোলন করা হয়। এর মধ্যে বহিরাগত কোন সিএনজি এলে তাদের কাছ থেকে ১শ টাকা নিয়ে আমাদের আগে সিরিয়াল দেয়া হয়। প্রতিবাদ করলে মারধর সহ সিরিয়াল পিছিয়ে দেয়ার শাস্তি দেয়া হয়।

সিএনজি চালক মো. মিলন, তোফাজ্জল হোসেন জানান, উপজেলার বান্দুরা সিএনজি স্ট্যান্ডে চাঁদাবাজদের দৌরাত্ম বেড়েই চলছে। প্রতিবাদ করলেই মারধরের শিকার হতে হয়। সাজা হিসেবে সিরিয়াল পিছিয়ে দেয়া হয়।

সিএনজি চালক আলীম মিয়া, মো. মামুন জানান, কালা মামুনরা এলাকার বাইরের অন্তত ১০টি সিএনজি চালকের কাছ থেকে ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা নিয়ে সিরিয়ালে ঢুকিয়েছে। বলতে গেলে সিএনজি চালকদের স্ট্যান্ড থেকে বের করে দেয়া সহ মারধরের হুমকি দেয়া হয়।

এবিষয়ে অভিযুক্ত মো. মামুন কালা মামুনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি চাঁদা তোলার বিষয়ে স্বীকার করেন। তিনি বলেন, আমি হুকুম পালন করি মাত্র। স্থানীয় দুজন জনপ্রতিনিধির নির্দেশে আমি ও আমার লোকেরা চাঁদা তুলে থাকে। এখানে আমার কোন দোষ নেই।

Check Also

দৌলতদিয়ায় উত্তরন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে পূর্বপাড়ার ২ হাজার দুঃস্হ্য নারীদের জন্য কুরবানি মাংস বিতরণ

॥ আবুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া পূর্ব পাড়ার (যৌনপল্লীর) দুই …