সোমবার , ১৭ জুন ২০২৪

গোয়ালন্দ মহাশশ্মানের প্রধান ফটক ও স্নানের বেদী তৈরির ভিত্তি প্রস্থর স্থাপনের উদ্বোধন

॥ আবুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি ॥

গোয়ালন্দ কেন্দ্রীয় মহাশশ্মানের প্রবেশ পথের প্রধান ফটক এবং মৃত ব‍্যক্তির স্নান করার স্থানে বেদী তৈরির ভিত্তি প্রস্থর স্থাপনের উদ্বোধন করা হয়েছে।

 

সপ্তবর্ণা ফিলিং স্টেশনের স্বত্বাধিকারী রনজিৎ কুমার সরকার (টিটু) বলেন মৃত ব‍্যক্তির স্নান করার জায়গা আবশ্যক। এজন্য গোয়ালন্দ মহাশশ্মানে স্নান ঘর ও প্রবেশ পথের প্রধান ফটক তৈরিতে পরিবারের পক্ষ হতে সহযোগিতা করলাম।

সোমবার ২০ মে সকাল সাড়ে ১১ টায় মহাশশ্মানে স্বপ্তবর্ণা ফিলিং স্টেশনের স্বত্বাধিকারী রনজিৎ কুমার সরকার (টিটু)-এর অর্থায়নে গোয়ালন্দ কেন্দ্রীয় মহাশশ্মানের প্রধান ফটক তৈরি ও মৃত ব‍্যক্তির মহদেহ স্নান কার্যের সুবিধার্থে একটি স্নানঘর স্থাপনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, সপ্তবর্ণা ফিলিং স্টেশনের মালিক রনজিৎ কুমার সরকার (টিটু), গোয়ালন্দ কেন্দ্রীয় মহাশশ্মান পরিচালনা কমিটির উপদেষ্টা নিরঞ্জন কুমার আগরওয়ালা, সভাপতি শংকর কুমার দাস, সাধারণ সম্পাদক ও গোয়ালন্দ পৌর সভার সাবেক কাউন্সিলর কোমল কুমার সাহা, সৌরভ সিংহ রায় সহ অন‍্যান‍্য সদস্যবৃন্দ।

মহাশশ্মান পরিচালনা কমিটির শংকর কুমার দাস বলেন, শশ্মানটি প্রতিষ্ঠার পর থেকেই শশ্মানে প্রবেশ পথের প্রধান ফটক নেই এবং মৃতদেহ স্নান করার জায়গা না থাকায় অসুবিধায় পরতে হতো। সপ্তবর্ণা ফিলিং স্টেশনের মালিক রনজিৎ কুমার সরকার (টিটু) প্রধান ফটক ও স্নানের বেদী তেরিতে সহযোগিতা করায় তার কাছে আমরা চির কৃতজ্ঞ।

সপ্তবর্ণা ফিলিং স্টেশনের স্বত্বাধিকারী রনজিৎ কুমার সরকার (টিটু) বলেন মৃত ব‍্যক্তির স্নান করার জায়গা আবশ্যক। এজন্য গোয়ালন্দ মহাশশ্মানে স্নান ঘর ও প্রবেশ পথের প্রধান ফটক তৈরিতে পরিবারের পক্ষ হতে সহযোগিতা করলাম।

Check Also

দৌলতদিয়ায় উত্তরন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে পূর্বপাড়ার ২ হাজার দুঃস্হ্য নারীদের জন্য কুরবানি মাংস বিতরণ

॥ আবুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া পূর্ব পাড়ার (যৌনপল্লীর) দুই …