সোমবার , ১৭ জুন ২০২৪

মোংলায় বিশ্ব বাঘ দিবসে পালিত

॥ বাগেরহাট প্রতিনিধি ॥

বাঘ বেঁচে থাকা আমাদের হাতে। বাঘের জীবন রক্ষায় সুন্দরবন রক্ষা জরুরি। বাঙালির শৌর্য-বীর্যের প্রতীক, বাঘ রক্ষায় সকলকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে। বাঘের অস্তিত্ব রক্ষা না হলে সুন্দরবন বিপন্ন হবে। বাঘ কেমন আছে সেটা দেখেই আমরা বুঝতে পারি সুন্দরবন কেমন আছে।

বাঘের আবাসস্থল সুন্দরবন রক্ষায় সরকারকে আন্তরিক হতে হবে। ২৯ জুলাই শনিবার সকালে বিশ্ব বাঘ দিবস উপলক্ষে মোংলা পোর্ট পৌরসভা চত্বরে ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ এবং পশুর রিভার ওয়াটারকিপারের যৌথ আয়োজনে দিনব্যাপী কর্মসুচির র‌্যালিপূর্ব উদ্বোধনী সমাবেশে বক্তারা একথা বলেন।

 

 

বাঘ সুরক্ষায় মনিটরিং সেল গঠন করতে হবে। উদ্বোধনী সমাবেশ শেষে একটি সুসজ্জিত র‌্যালি মোংলা শহর প্রদক্ষিণ করে। অন্যদিকে বিকেল ৩টায় সুন্দরবন সংলগ্ন মোংলার বৈদ্যমারি মাঠে ওয়াটারকিপারর্স বাংলাদেশ

”বাঘ করি সংরক্ষণ; সমৃদ্ধ হবে সুন্দরবন” শ্লোগানে বিশ্ব বাঘ দিবসের উদ্বোধনী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ’র সমন্বয়কারি বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) এর সাবেক কেন্দ্রিয় সাধারণ সম্পাদক শরীফ জামিল। সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহি অফিসার দীপংকর দাশ।

উদ্বোধনী সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সহকারি পুলিশ সুপার মুশফিকুর রহমান তুষার, থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ সামসুদ্দিন, সুন্দরবন ও উপকূল সুরক্ষা আন্দোলনের সমন্বয়কারি সাংবাদিক নিখিল ভদ্র, ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাংস্কৃতিক সম্পাদক শাকিলা পারভীন রুমা, মোংলা সরকারি কলেজের প্রভাষক শ্যামা প্রসাদ সেন ও প্রভাষক মাহবুবুর রহমান। উদ্বোধনী সমাবেশ পরিচালনা করেন পশুর রিভার ওয়াটারকিপার বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) এর কেন্দ্রিয় নেতা মোঃ নূর আলম শেখ।

উদ্বোধনী সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের মোঃ হারুন গাজী, বাপা নেতা গীতিকার মোল্লা আল মামুন, পশুর রিভার ওয়াটারকিপার ভলান্টিয়ার কমলা সরকার, ঢাংমারি ডলফিন সংরক্ষণ দলের নেতা ই¯্রাফিল বয়াতি, পরিবেশকর্মী শেখ রাসেল, হাছিব সরদার প্রমূখ। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় উপজেলা নির্বাহি অফিসার দীপংকর দাশ বলেন সরকার বন ও বন্যপ্রাণী রক্ষায় নানা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

সাম্প্রতিক সময়ে সুন্দরবনে বাঘের আনাগোনা বৃদ্ধি পেয়েছে। বাঘের খাদ্য হরিণও সুন্দরবনে বৃদ্ধি পেয়েছে। সভাপতির বক্তব্যে ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ’র সমন্বয়কারী শরীফ জামিল বলেন বাঘের আবাসস্থল সুন্দরন রক্ষায় সরকারকে আন্তরিক হতে হবে। বনবিনাশী সকল প্রকল্প বাতিল করতে হবে।

বাঘ সুরক্ষায় মনিটরিং সেল গঠন করতে হবে। উদ্বোধনী সমাবেশ শেষে একটি সুসজ্জিত র‌্যালি মোংলা শহর প্রদক্ষিণ করে। অন্যদিকে বিকেল ৩টায় সুন্দরবন সংলগ্ন মোংলার বৈদ্যমারি মাঠে ওয়াটারকিপারর্স বাংলাদেশ এবং পশুর রিভার ওয়াটারকিপারের আয়োজনে বাঘ রক্ষায় সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ,

লাঠিখেলা ও বাঘ উদ্ধার মহড়া অনুষ্ঠিত হয়। ফুটবল খেলায় অংশগ্রহণ করেন টাইগার স্পোর্টিং ক্লাব বনাম সুন্দরবন স্পোর্টিং ক্লাব। লাঠিখেলা প্রদর্শন করেন ঐতিহ্যবাহী ছহির উদ্দিন লাঠিখেলা দল এবং বাঘ উদ্ধার মহড়ায় অংশগ্রহণ করেন ভিলেজ টাইগার রেসপন্স টিমের সদস্যরা।

Check Also

দৌলতদিয়ায় উত্তরন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে পূর্বপাড়ার ২ হাজার দুঃস্হ্য নারীদের জন্য কুরবানি মাংস বিতরণ

॥ আবুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি ॥ রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া পূর্ব পাড়ার (যৌনপল্লীর) দুই …